,


সংবাদ শিরোনাম:
«» সাঈদীর মুক্তি চেয়ে পদ হারিয়েছেন ছাত্রলীগ নেতা «» তাহিরপুরে নদী থেকে যুবলীগ সভাপতির বালু উত্তোলন «» তামাবিলে অসহায় শ্রমিকদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ «» সিলেট জেলা পুলিশের উদ্যোগে গোলাপগঞ্জে হত দরিদ্রদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ «» তাহিরপুরে সর্দি কাশিতে গার্মেন্টস কর্মীর মৃত্যুঃ পুরো ফেমিলি লকডাউন, এলাকায় আতঙ্ক «» ধর্মপাশা উপজেলায় ৫ হাজার অসহায় ও কর্মহীন মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ «» জগন্নাথপুরে লোকসমাগমে বিয়ের আয়োজন,কনের বাবাকে অর্থদণ্ড «» তামাবিলে অসহায় শ্রমিকদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ «» খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে তৈরি হচ্ছে: হ্যান্ড স্যানিটাইজার «» নবীগঞ্জে ত্রান সামগ্রী নিয়ে নিম্নয়ায়ের মানুষ এর পাশে – এমপি মিলাদ গাজী 

যশোরে বিয়ের প্রলোভনে শারীরিক সম্পর্ক, ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা

যশোরে বিয়ের প্রলোভনে শারীরিক সম্পর্ক, ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা

নিলয় ধর,যশোর প্রতিনিধি:-
যশোরের মনিরামপুরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রেমিকার সাথে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের ফলে এক মাদ্রাসাছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছেন। কিন্তু কলেজছাত্র প্রেমিক এখন ওই ছাত্রীকে বিয়ে করতে অস্বীকার করছে। ফলে ওই ছাত্রী জনপ্রতিনিধি সহ এলাকার মানুষের দ্বারে দ্বারে ধর্ণা দিচ্ছেন। এই নিয়ে স্থানীয়ভাবে সালিশি সভার আয়োজন করা হলেও শেষ পর্যন্ত কোন সুফল বয়ে আসেনি। বর্তমানে কলেজছাত্র গা ঢাকা দিয়েছেন।
জানা গেছে , উপজেলার খানপুর ইউনিয়নের পশ্চিম মাছনা গ্রামের মৃত আনোয়ার হোসেন গাজীর ছেলে মনিরামপুর সরকারি কলেজের অনার্সের ছাত্র শরিফুল ইসলামের সাথে প্রায় দু বছর আগে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে স্থানীয় এক মাদ্রাসাছাত্রীর। একপর্যায়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রেমিকার সাথে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলেন শরিফুল ইসলাম। এরই মধ্যে ওই ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন।
এই বিষয়ে ছাত্রীর অভিযোগ, অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর জানিয়ে শরিফুলকে বিয়ের কথা বলতেই সে অস্বীকার করেছে। বিষয়টি জানাজানি হবার পর ছাত্রীর অভিভাবকরা শরিফুলের দারস্থ হয়ে বিয়ের প্রস্তাব দেন। কিন্তু তাতেও রাজি হননি শরিফুল। এক পর্যায়ে অভিভাবকরা স্থানীয় ইউপি সদস্য ইদ্রিস আলী এবং হাজিরা খাতুনসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের শরণাপন্ন হয়েছে ।
ইউপি সদস্য ইদ্রিস আলী জানান, এলাকার গণ্যমান্যদের সাথে নিয়ে শুক্রবার সকালে শরিফুলের বাড়িতে গিয়ে শালিস সভার আয়োজন করা হয়। কিন্তু শরিফুল ওই ছাত্রীকে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। ফলে কোন উপায়ন্ত না পেয়ে ছাত্রীর অভিভাবকদের আইনের আশ্রয় নিতে পরামর্শ দেয়া হয়েছে।
ছাত্রী জানিয়েছেন, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শরিফুল শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করায় সে এখন আড়াই মাসের অন্তঃসত্ত্বা। শরিফুল তাকে বিয়ে না করলে আত্মহত্যা করা ছাড়া কোন উপায় থাকবে না।এই  ব্যাপারে জানতে শরিফুলের বাড়িতে গিয়ে তাকে পাওয়া যায়নি। তবে তার মা জাহানারা খাতুন এবং সৎভাই জামাল উদ্দিন জানান, শরিফুল বিয়ে করতে অস্বীকার করায় তাদের পক্ষে কোন ব্যবস্থা নেয়া সম্ভব নয়।
তবে ছাত্রীর পিতা জানান, এই ব্যাপারে আইনের আশ্রয় নিতে প্রস্তুুতি নেয়া হচ্ছে। মনিরামপুর থানার ওসি (সার্বিক) রফিকুল ইসলাম জানান, এই ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ পেলে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
Share

Comments are closed.