,


সংবাদ শিরোনাম:
«» ৬৮ হাজার দরিদ্র পরিবারের কাছে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেয়ার দায়িত্ব নিয়েছন মেয়র আরিফ «» ৬৮ হাজার দরিদ্র পরিবারের কাছে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দেয়ার দায়িত্ব নিয়েছন মেয়র আরিফ «» বাংলা নববর্ষের অনুষ্ঠান না করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর «» করোনার মধ্যেই চীনে দাবানল, ১৮ ফায়ারসার্ভিস কর্মী নিহত «» পর্যটকশূন্য কক্সবাজার সৈকতে ফুটেছে সাগরলতা «» চার সহযোগী হাত-পা-মাথা চেপে ধরে, বাবার গলায় ছুরি চালায় ছেলে «» গোলাপগঞ্জ থানা পুলিশের নিজ উদ্যেগে দরিদ্র পরিবারে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ «» গোলাপগঞ্জে হোম কোয়ারেন্টিন না মানায় বিদেশ ফেরত যুবককে জরিমানা «» আনোয়ার মেম্বারের উদ্যোগে অর্ধশত নিম্ন আয়ের মানুষের মধ্যে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ «» সুনামগঞ্জে খাদ্য সহায়তা কর্মসূচির ৩০ বস্তা চালসহ আটক ২

২০২০ সালের মধ্যে ফাইভ-জি চালু করা হবে: মোস্তাফা জব্বার

২০২০ সালের মধ্যে ফাইভ-জি চালু করা হবে: মোস্তাফা জব্বার

 

২০২০ সালের মধ্যে ফাইভ-জি চালু করা হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশের (আইইবি) কাউন্সিল হলে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে আজ মঙ্গলবার (১৭ ডিসেম্বর) সকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এই আশা প্রকাশ করেন মন্ত্রী।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, ২০২০ সালের দ্বিতীয় কোয়ার্টারের মধ্যে ফাইভ-জি চালু করার চিন্তা করছি আমরা। এই নিয়ে কাজ এগিয়ে চলেছে। সামনের দিনে ইন্ডাস্ট্রির নির্ভরতা হবে ফাইভ-জি। দেশ এগিয়ে চলেছে, দেশে উন্নয়ন হচ্ছে। এই উন্নয়নের মহাসড়কের নাম হবে ফাইভ-জি।

তিনি আরও বলেন, ডিজিটাল শব্দটি বাংলাদেশ থেকে উচ্চারিত হয়েছে। আমরাই প্রথম ডিজিটাল বাংলাদেশের ঘোষণা দেই। এরপর ২০১৪ সালে ভারত, ২০১৫ সালে মালদ্বীপ এবং এ বছরের ৫ ডিসেম্বর পাকিস্তানও ডিজিটালের ঘোষণা দিয়েছে। তবে পাকিস্তান এখনো প্রক্রিয়া শুরু করেনি।

মন্ত্রী বলেন, আইইবি দেশের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। ইঞ্জিনিয়াররা তাদের দক্ষতা বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দিচ্ছে। সভ্যতা বিকাশের ক্ষেত্রে প্রকৌশলীরা তাদের ভূমিকা রেখেছে। চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের সময় তাদের ভূমিকা আরও বেড়ে যাবে। এজন্য তাদের সেইরকমভাবে গড়ে তুলতে হবে বলেও তিনি জানান।

আইইবির সভাপতি প্রকৌশলী মো. আবদুস সবুরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন আইইবি’র কম্পিউটার কৌশল বিভাগের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মুহাম্মদ মাহফুজুল ইসলাম ও আইইবি’র সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী খন্দকার মনজুর মোর্শেদ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে রাজউকের সাবেক চেয়ারম্যান প্রকৌশলী নুরুল হুদাও উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা করেন আইইবি’র কম্পিউটার কৌশল বিভাগের সম্পাদক প্রকৌশলী মো. রনক আহসান।

Share

Comments are closed.