,


সংবাদ শিরোনাম:
«» চেয়ারম্যান-মেম্বার নয়; সেনা-নৌ দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বরাদ্দ বিতরণ চায় মানুষ «» নবীগঞ্জ উপজেলায় সরকারি বরাদ্দকৃত খাদ্য সামগ্রী বিতরণ শুরু করলেন- বিশ্বজিত কুমার পাল «» জগন্নাথপুর জনতাকে সচেতন করতে পুলিশের মাইকিং «» ওসি আহাদের বৃত্তাঙ্কনের সেবা নিচ্ছে গোয়াইনঘাটের জনগণ «» যশোর মণিরামপুরে এসিল্যান্ড দু’বৃদ্ধকে কানধরে উঠবস করালেন «» সিলেটে ঘরে বসে সরকারি খাদ্য সামগ্রী পাচ্ছে ১৫ শতাধিক পরিবার «» বাংলাদেশ নৌবাহিনীর”খুলনা অঞ্চলে জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম” «» করোনার প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ «» এসিল্যান্ডের বিরুদ্ধে মামলা করবেন ব্যারিস্টার সুমন «» আয়ের পথ বন্ধ, গোলাপগঞ্জে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

২৯ মার্চ থেকে ২ এপ্রিল সব আদালতের সাধারণ ছুটি

২৯ মার্চ থেকে ২ এপ্রিল সব আদালতের সাধারণ ছুটি

 

ঘোষিত সাধারণ ছুটির ধারাবাহিকতায় ২৯ মার্চ থেকে আগামী ২ এপ্রিল পর্যন্ত সুপ্রিম কোর্টের উভয় বিভাগ ও সব অধস্তন আদালতে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন থেকে আজ মঙ্গলবার এই বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে।

নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে গতকাল সোমবার পাঁচ দিন সাধারণ ছুটি (২৯ মার্চ থেকে ২ এপ্রিল) ঘোষণা করে সরকার। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় আজ এ–সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করে। এই প্রজ্ঞাপনের প্রসঙ্গ উল্লেখ করে আজ সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে আদালতে সাধারণ ছুটি–সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়।

সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. আলী আকবর স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তির ভাষ্য, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের জারি করা প্রজ্ঞাপনে দেশব্যাপী করোনাভাইরাস রোগের (কোভিড-১৯) সংক্রমণ মোকাবিলা এবং এর ব্যাপক বিস্তার প্রতিরোধকল্পে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে ২৯ মার্চ থেকে ২ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। এ অবস্থায় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় কর্তৃক ঘোষিত ছুটির ধারাবাহিকতায় ২৯ মার্চ থেকে ২ এপ্রিল পর্যন্ত সুপ্রিম কোর্টের উভয় বিভাগ ও সব অধস্তন আদালতে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হলো।

সুপ্রিম কোর্টে এখন অবকাশকালীন ছুটি চলছে। সাপ্তাহিক ছুটিসহ ১৩ মার্চ থেকে শুরু হওয়া অবকাশকালীন ছুটি ছিল ২৮ মার্চ পর্যন্ত। অবকাশ শেষে ২৯ মার্চ নিয়মিত আদালত বসার কথা ছিল। তবে অবকাশকালে জরুরি বিষয়টি শুনানি ও নিষ্পত্তির জন্য বেশ কয়েকটি অবকাশকালীন বেঞ্চ রয়েছে।
Share

Comments are closed.