,


সংবাদ শিরোনাম:
«» পারিবারিক কলহের জের ধরে স্ত্রী সহ ৪ জন খুন স্বামীর আত্মহত্যা  «» গোলাপগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বেহাল দশা «» মাদকের অভিশাপ থেকে প্রতিটি পরিবারকে মুক্ত দেখতে চাই : গোলাপগঞ্জে পুলিশ সুপার ফরিদ উদ্দিন «» তাহিরপুর দুই গ্রুপের  আধিপত্য বিস্তার নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা !  «» ভর্তি বানিজ্যের প্রতিবাদে সিলেট “ল” কলেজে মানববন্ধন  «» সিলেট “ল” কলেজে লাগামহীন ভর্তি ফি বাণিজ্য বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন «» শিল্প উদ্যোক্তাদের বিভিন্ন রকমের প্রণোদনা দেয়া হচ্ছে:শিল্প সচিব মোঃ হালিম «» যশোরে বিদ্যুতের খুঁটিতে মাইক্রোর ধাক্কা, ৩ জনের মৃত্যু «» ভারতে হোটেলে যশোরের নারী খুন «» বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদ ও স্মৃতি পাঠাগার ছাত্রফেডারেশন বাংলাদেশ গোলাপগঞ্জ উপজেলা শাখার সাময়িক স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করেছে জেলা ইউনিট

অস্ত্রের মুখে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ…

অস্ত্রের মুখে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ…

সিলেট সমাচার ডেস্ক :: ময়মনসিংহের ভালুকায় অস্ত্রের মুখে এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করে মোবাইলে ভিডিও ধারণের অভিযোগ পাওয়া গেছে স্থানীয় দুই বখাটে যুবকের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর বাবা জেলা পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগের পর রোববার দুপুরে থানায় মামলা হয়েছে।
অভিযুক্তরা হলেন- উপজেলার কৈয়াদী গ্রামের মৃত জাবেদ আলীর ছেলে সাইফুল ইসলাম (৩৫) ও একই এলাকার ইয়ার মাহমুদের ছেলে রমজান আলী (৩০)।
পুলিশ ও ছাত্রীর পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার কৈয়াদীর একটি স্কুলে অষ্টম শ্রেণিতে পড়ে ওই ছাত্রী। গত ১৬ জুন বাড়ি থেকে স্কুলে যাওয়ার পথে (জঙ্গলের ভেতর দিয়ে রাস্তা) কায়ানাড়া নামকস্থানে এলাকার দুই বখাটে সাইফুল ও রমজান ধারালো অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে গভীর জঙ্গলে নিয়ে ধর্ষণ করে এবং ধর্ষণের ঘটনাটি মোবাইলে ভিডিও ধারণ করে।
এসময় ঘটনাটি কাউকে জানালে এসিড নিক্ষেপসহ ভিডিও ফেসবুকে ছেড়ে দেয়ার হুমকি দেয়। ভয়ে ওই কিশোরী ঘটনাটি পরিবারের কাউকে জানায়নি। গত ২৪ জুন ওই ছাত্রী একই রাস্তা দিয়ে আবারও স্কুলে পরীক্ষা দিতে যাওয়ার সময় ওই দুই বখাটে রাস্তা আটকে জঙ্গলে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এসময় ওই ছাত্রী কৌশলে পালিয়ে এসে ঘটনাটি তার পরিবারকে জানায়।
এ ঘটনায় ওই শিক্ষার্থীর বাবা আজ ময়মনসিংহ পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগ দিলে পরে থানায় মামলা নেয়া হয়।
ভালুকা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাইন উদ্দিন জানান, এ ঘটনায় পুলিশ সুপারের নির্দেশে রোববার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে থানায় মামলা হয়েছে। ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ওই ছাত্রীকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।
বাংলাদেশ জার্নাল/ওয়াইএ
Share

Comments are closed.