,


সংবাদ শিরোনাম:
«» বিশ্বম্ভপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোশাররফ হোসেন রাহাতের জন্মদিন উদযাপন «» মৃত্যু   «» জগন্নাথপুরে বেরীবাঁধের কাজে অনিয়ম এলাকাবাসীর অভিযোগ «» শাবিপ্রবির উপাচার্যসহ আটজনের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার রুল «» আগামীকাল জৈন্তাপুর উপজেলা আ’লীগের কার্যবাহী কমিটির প্রথম সভা «» নগরীতে সকাল ৮টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত ভারী যানবাহন চলাচল বন্ধের দাবি «» ধর্মপাশায় হযরত খাজা মঈন উদ্দিন চিশতি (রঃ) এর স্মরণে ৪১তম ওরশ মোবারক অনুষ্ঠিত «» সুনামগঞ্জ পৌরসভার সহিফা-সমরু নামে নতুন একটি সড়কের উদ্বোধন «» প্রশাসনের আশ্বাসে মৌলভীবাজারে পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হয়েছে «» জকিগঞ্জ সোসাইটি অব ইউএসএ ইন্ক’র অর্থায়নে ১ হাজার শীর্তাত মানুষের মাঝে কম্বল বিতরণ

সাবেকদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তদন্ত করা হবে

সাবেকদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তদন্ত করা হবে

 

ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে অভিযোগ তদন্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন সংগঠনটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য।

রবিবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়ে এ কথা জানান তারা।

ছাত্রলীগের নতুন দুই কাণ্ডারী বলেন, ‘আগের দু’জন পদত্যাগ করেছেন, আর আমরা কেবলই দায়িত্ব নিয়েছি। আমাদের দায়িত্ব হলো সংগঠনকে গড়ে তোলা। এ বিষয়ে যারা দায়িত্বপ্রাপ্ত তারা যে দিক নির্দেশনা দেবেন সে অনুযায়ী কাজ করবো। ছাত্রলীগের ভাবমূর্তি যেটা ক্ষুণ্ণ হয়েছে সেটা পুনরুদ্ধার করে একটি ইতিবাচক ভাবমূর্তি গড়ে তোলার চেষ্টা করবো।’

তারা বলেন, ‘ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ উঠেছে তা তদন্ত করা হবে। ছাত্রলীগ চাঁদাবাজ-টেন্ডারবাজদের প্রশ্রয় দেয় না। কারো বিরুদ্ধে এ ধরনের অভিযোগ পাওয়া গেলে এবং তদন্ত সাপেক্ষে তা প্রমাণিত হলে যথোপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

তারা বলেন, ‘ছাত্রলীগের একটি গঠনতন্ত্র আছে। তবে সব গঠনতন্ত্রের ঊর্ধ্বে হচ্ছেন শেখ হাসিনা। তিনিই ছাত্রলীগের একমাত্র অভিভাবক। শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করাসহ তিনি ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত সোনার বাংলা গড়ে তোলার যে দায়িত্ব নিয়েছেন, তাতে সহযোগিতা করবো। একই সঙ্গে ছাত্রদের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য আমরা চেষ্টা করবো।’

সাবেকদের মতো নতুন দায়িত্বপ্রাপ্তরাও চাঁদাবাজিতে-টেন্ডারবাজির অভিযোগ উঠবে কি-না জানতে চাইলে তারা বলেন, ‘আমাদের গায়ে কোনো কলঙ্কের দাগ লাগতে দেব না। নিজেদের একটি ইতিবাচক ইমেজ গড়ে তোলার চেষ্টা করবো।’

ছাত্রলীগের ২৯তম জাতীয় সম্মেলনের আড়াই মাস পর গত বছরের ৩১ জুলাই রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনকে সভাপতি ও গোলাম রাব্বানীকে সাধারণ সম্পাদক করে দুই বছর মেয়াদি আংশিক কমিটি ঘোষণা করা হয়। সে হিসেবে আরও প্রায় ১১ মাস এই কমিটির মেয়াদ ছিল।

কিন্তু চাঁদাবাজিসহ বেশ কিছু অভিযোগে সমালোচনা ওঠায় শোভন ও রাব্বানীকে গতকাল ছাত্রলীগের নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। শোভনের পরিবর্তে আল নাহিয়ানকে সংগঠনটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আর রাব্বানীর পরিবর্তে লেখক ভট্টাচার্যকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়।

সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়ের সময় ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে ছিলেন ঢাবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র, সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন প্রমুখ।

এর আগে সকাল থেকে ঢাবির বিভিন্ন হলের ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে মধুর ক্যান্টিনে জড়ো হন। পরে বেলা ১২টার পর সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য মধুর ক্যান্টিনে উপস্থিত হলে নেতাকর্মীরা তাদের স্বাগত জানান।

 

Share

Comments are closed.