,


সংবাদ শিরোনাম:
«» পারিবারিক কলহের জের ধরে স্ত্রী সহ ৪ জন খুন স্বামীর আত্মহত্যা  «» গোলাপগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বেহাল দশা «» মাদকের অভিশাপ থেকে প্রতিটি পরিবারকে মুক্ত দেখতে চাই : গোলাপগঞ্জে পুলিশ সুপার ফরিদ উদ্দিন «» তাহিরপুর দুই গ্রুপের  আধিপত্য বিস্তার নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা !  «» ভর্তি বানিজ্যের প্রতিবাদে সিলেট “ল” কলেজে মানববন্ধন  «» সিলেট “ল” কলেজে লাগামহীন ভর্তি ফি বাণিজ্য বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন «» শিল্প উদ্যোক্তাদের বিভিন্ন রকমের প্রণোদনা দেয়া হচ্ছে:শিল্প সচিব মোঃ হালিম «» যশোরে বিদ্যুতের খুঁটিতে মাইক্রোর ধাক্কা, ৩ জনের মৃত্যু «» ভারতে হোটেলে যশোরের নারী খুন «» বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদ ও স্মৃতি পাঠাগার ছাত্রফেডারেশন বাংলাদেশ গোলাপগঞ্জ উপজেলা শাখার সাময়িক স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করেছে জেলা ইউনিট

হামজা রহমান অন্তরের সঙ্গে প্রক্টরের কথপোকথন ভাইরাল

হামজা রহমান অন্তরের সঙ্গে প্রক্টরের কথপোকথন ভাইরাল

 

সিলেট সমাচার ডেস্কঃ

হামজা রহমান অন্তরের সঙ্গে প্রক্টরের ফোনালাপটি এরই মধ্যে ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। অডিওতে অন্তরের উদ্দেশ্যে প্রক্টরকে বলতে শোনা যায়, ফোনটা যেহেতু তোমার, তোমাকেই কিন্তু দায়টা নিতে হবে। তোমার ফোনে কথপোকথন, তুমি কিন্তু দায়টা এড়াতে পার না। কথপোকথনের এক পর্যায়ে হামজা রহমান অন্তরকে বলতে শোনা যায়, ‘ক্যাম্পাসের ৪৪-৪৫ ব্যাচ পর্যন্ত টাকা পাইছে, এটা গোপন রাখার কী আছে স্যার?….স্যার আপনি যদি চান, আমি আপনাকে প্রমাণ দেখাতে পারবো, ৪৪-৪৫ ব্যাচও টাকা পাইছে।’ এ বিষয়ে জানতে চাইলে ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর আ স ম ফিরোজ উল হাসান বলেন, ‘অন্তরের সঙ্গে আমার ইনফরমাল সম্পর্ক। ও আমার অনেক কাছের স্টুডেন্ট। সেই হিসেবে তার সঙ্গে অনেক কথায় হয়। তবে তাকে কোনো হুমকি দেওয়া হয়নি।’ উল্লেখ্য, গতকাল রোববার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগকে উপাচার্যের টাকা দেওয়ার বিষয়ে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সদ্য সাবেক সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী ও শাখা ছাত্রলীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেনের মধ্যকার একটি ফোনকল কথপোকথন ছড়িয়ে পড়ে। ফোন আলাপে সাদ্দাম হোসেনকে বলতে শোনা যায়, উপাচার্য তার বাসভবনে শাখা ছাত্রলীগের তিনটি গ্রুপের মধ্যে ১ কোটি টাকা ভাগ করে দিয়েছেন। এর মধ্যে সভাপতি জুয়েল ৫০, সাধারণ সম্পাদক চঞ্চল ২৫ ও তারা (সাদ্দাম) ২৫ লাখ টাকা পেয়েছেন। তবে ছাত্রলীগকে টাকা প্রদানের অভিযোগ বরাবরই অস্বীকার করে আসছেন উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম। সূত্র : আমাদের সময়

Share

Comments are closed.