,


সংবাদ শিরোনাম:

তাহিরপুর আওয়ামীলীগের সভাপতি পদে,আলোচনার শীর্ষে,শামীম আখঞ্জী

তাহিরপুর আওয়ামীলীগের সভাপতি পদে,আলোচনার শীর্ষে,শামীম আখঞ্জী

 

তাহিরপুর প্রতিনিধিঃ

দীর্ঘদিন পর আগামী(১৭,নভেম্বর)সুনামগঞ্জ তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলন, উক্ত সম্মেলন কে কেন্দ্র করে জনমনে আলোচনার শীর্ষে শামীম।উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজার ও বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের দ্বারেদ্বারে চষে বেড়াচ্ছেন, মুক্তিযোদ্ধা চলাকালীন মুক্তিযোদ্ধা সংগ্রাম পরিচালনা কমিটির অন্যতম সহযোগী এবং তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সভাপতি এবং তাহিরপুর উপজেলা সদর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুস সোবহান আখঞ্জীর উত্তরসূরী,এবং তাহিরপুর উপজেলা মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ের মুক্তিযোদ্ধা পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও তাহিরপুর থানা আওয়ামীলীগের প্রথম সাধারণ সম্পাদক মরহুম আব্দুন নুর আখঞ্জীর বড় ছেলে।তাহিরপুর উপজেলার আওয়ামীলীগ সম্রান্ত পরিবারের সন্তান ও তাহিরপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও তাহিরপুর উপজেলা যুবলীগের সাবেক আহবায়ক ও সভাপতি,বর্তমান জেলা আওয়ামীলীগ সম্মানিত সদস্য তাহিরপুর উপজেলা সদর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোতাহার হোসেন (শামীম আখঞ্জী)।

 

জানাযায় তিনি ছাত্ররাজনীতি হতে শুরু করে এপর্যন্ত উপজেলার সাবেক ছাত্রলীগ ও যুবলীগের সভাপতি এমনকি তাহিরপুর উপজেলা সদর ইউনিয়নের একজন জনপ্রতিনিধি হিসেবেও উনি সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করে এসেছেন বলে দাবি করছেন তৃণমূল নেতাকর্মীরা।

আগামী ১৭,নবেম্বর তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলনকে কেন্দ্র করে তাহিরপুর উপজেলার সভাপতি পদ নিয়ে মোতাহার হোসেন শামীম (আখঞ্জী)তৃণমূল আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের ব্যাপকভাবে আলোচনায় তিনি।ব্যাপকভাবে আলোচনায় রয়েছেন তিনি। তৃণমূল নেতাকর্মীরা এই নেতাকে উপজেলার সভাপতি হিসেবে দেখতে চান।

 

এ নিয়ে তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামিলীগ ও আওয়ামীলীগের অঙ্গসংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা মোহতাহার হোসেন শামীম আখঞ্জী কে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুক সহ বিভিন্ন হাটবাজারে তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি হিসেবে দেখতে চান বলে প্রচারণা শুরু করছেন।

কিন্তু তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি পদ নিয়ে, মোতাহার হোসেন শামীম আখঞ্জী গণমাধ্যম কে জানান এই হাওর বেষ্টিত দুর্গম এলাকায় ,যারা ৭১ এর স্বাধীনতার পর থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ লালন করে এবং বঙ্গবন্ধুর কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে যারা মাঠপর্যায়ে কাজ করে আসছেন আজকাল তাদের কোন মুল্যায়ল নেই বলেই চলে।

 

আমি তাদের সঙ্গী হয়ে একে অন্যের সহযোগী হয়ে চলতে চাই।আজকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের লড়াকু সৈনিকেরা আওয়ামীলীগে অনুপ্রবেশকারী নব্য আওয়ামিলীগ ও আওয়ামী নাম দ্বারী হাইব্রিড নেতাদের জন্যে, তারা আজ অনেক পিছিয়ে রয়েছেন।আমি তাদের নিয়ে তাহিরপুর উপজেলার আওয়ামীলীগের দুর্গ গড়ে তুলতে চাই,এবং আওয়ামিলীগ পরিবারের সন্তানদের নিয়েই কাজ করতে চাই।

তিনি আরো বলেন,আমি আওয়ামীলীগ পরিবারের সন্তান আমি ছাত্রলীগ থেকে শুরু করে এখনো পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার রাজনীতির সাথে জোড়ালো ভাবে ভূমিকা পালন করে আসছি।আমি ছাত্ররাজনীতি হতে এপর্যন্ত আওয়ামীলীগের দলীয় ক্ষমতা ব্যবহার করে দালালী করিনি,আমি কখনো কালো টাকার পাহাড় গড়ার স্বপ্ন দেখিনি।যারা দলের নাম বিক্রি করে কালো টাকার পাহাড় গড়ে তুলেছেন।যারা জাতীয় নির্বাচন থেকে শুরু করে উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামীলীগের বিরুদ্ধে কাজ করে যাচ্ছেন আমি তাদের বিরুদ্ধের, উপজেলা আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠনের তৃণমূল নেতা কর্মীদের বঙ্গবন্ধুর সৈনিক হিসেবে এবং জননেত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে ও তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামিলীগ কে সু – সংগঠিত করার লক্ষ্যে তাদের পাশে থাকতে চাই।

একইভাবে তাহিরপুর উপজেলার আওয়ামীলীগ সম্মেলনকে সামনে রেখে যাদের নাম শুনা যাচ্ছে তারা হলেন,তাহিরপুর উপজেলার বর্তমান সভাপতি আবুল হোসেন খান,উপজেলার বর্তমান সাধারন সম্পাদক অমল কান্তি কর,সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন ।

Share

Comments are closed.