,


সংবাদ শিরোনাম:
«» ধর্মপাশা চেয়ারম্যান কতৃক শিতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ উপস্থিত এম পি রতন «» গোলাপগঞ্জের পৌর এলাকায় পল্লী বিদ্যুতের উদ্যোগে উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত «» প্রথম পর্যায়ে ১০ হাজার ৭৮৯ রাজাকারের তালিকা প্রকাশ «» মধ্যনগর রামধানা ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট কতৃক মসজিদ নির্মাণ  «» সিলেট থিয়েটার মুরারিচাঁদ আয়োজিত ” পথ নাটক ও সাংস্কৃতিক উৎসব ” সম্পন্ন «» তাহিরপুরে লেপ-তোষকের দোকানে অগ্নিকান্ডে দুই লাখ টাকার ক্ষয় ক্ষতি «» তাহিরপুরে সবজি চাষ করে স্বাবলম্বী হচ্ছেন বেকাররা «» শাবি শিক্ষার্থীদের পাটকল শ্রমিকের ১১ দফা আদায়ে মৌনমিছিল ও মানববন্ধন «» শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশবিদ্যালয়:- প্রেস বিজ্ঞপ্তি «» মধ্যনগর বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে এম পি রতন এর বিনম্র শ্রদ্ধা’র’ মিছিল

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি নুন্যতম স্নাতক পাশ হতে হবে- শিক্ষা মন্ত্রণালয়

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি নুন্যতম স্নাতক পাশ হতে হবে- শিক্ষা মন্ত্রণালয়

 

সিলেট সমাচার ডেস্কঃ

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার নূন্যতম শিক্ষাগত যোগ্যতা স্নাতক বাধ্যতামূলক করেছে সরকার। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির পুরনো নীতিমালা বাতিল করে সংশোধীত নীতিমালায় এই নতুন বিধানটি সংযোজন করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। আজ সোমবার (১১ নভেম্বর)  এই প্রজ্ঞাপনটি প্রকাশ করে। প্রজ্ঞাপনে ৬ নভেম্বর সই করা হয়েছে।

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির (এসএমসি) সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার ক্ষেত্রে প্রাথমিক যোগ্যতা হিসেবে সভাপতি প্রার্থীর সন্তানকে অবশ্যই ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী হতে হবে। এছাড়া বিদ্যোৎসাহী সদস্যদেরও সন্তান বিদ্যালয়ের ছাত্র/ছাত্রী হতে হবে এবং তাদেরও শিক্ষাগত যোগ্যতা নূন্যতম এসএসসি হতে হবে। কমিটির সভাপতিকে অবশ্যই স্নাতক ডিগ্রিধারী হতে হবে। ১১ সদস্যের কমিটিতে সদস্য-সচিব থাকবেন প্রধান শিক্ষক।

এদিকে গত মে মাসে বেসরকারি হাইস্কুল-কলেজ ও মাদরাসায় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি ও সদস্য নির্বাচনে ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে বিতর্ক হয়েছে। কমিটির একটি অংশ চাচ্ছেন ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও সদস্যদের ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা থাকা উচিত। অন্যদিকে, আরেকটি অংশ চাচ্ছেন, যেখানে একজন সংসদ সদস্য নির্বাচিত হতে শিক্ষা যোগ্যতা লাগে না সেখানে পর্ষদের সভাপতি ও সদস্যদের শিক্ষাগত যোগ্যতা নির্ধারণের প্রয়োজন নেই। গত ২১ মে  সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত কমিটির বৈঠকে এ বিষয়ে আলোচনা হয়।

বৈঠক শেষে কমিটির সদস্য এম এ মতিন গণমাধ্যমকে বলেন, “কমিটিতে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল সাহেব বিষয়টি উপস্থাপন করেছিলেন। আমি এর সমর্থনে ছিলাম। কোনো চূড়ান্ত সুপারিশ আসেনি। নীতিমালা একটা হওয়া দরকার। সেটার জন্য সবার মতামতও নেওয়া হবে।”

“অংশীজনদের সঙ্গেও আলোচনা করতে হবে। শুধু আমরা আলোচনা করলে হবে না।”

সংসদ সচিবালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেল বিষয়টি উপস্থাপনের পর শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি এর বিপক্ষে অবস্থান নেন। তাদের যুক্তি একজন সংসদ সদস্য নির্বাচনের জন্য যেখানে শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে কথা ওঠে না সেখানে এই পদে কেন এই প্রশ্ন আসবে? পরে কমিটির অন্য সদস্যরা এ বিষয়ে নিজেদের মতামত দেন।

২০১৬ খ্রিষ্টাব্দে আদালতের রায়ে স্কুল-কলেজের পরিচালনা পর্ষদে অভিপ্রায়ের ভিত্তিতে স্থানীয় এমপির সভাপতি পদে মনোনীত হওয়ার বিধান বাতিল হয়।

সংসদীয় কমিটির বৈঠক সংক্রান্ত সংসদ সচিবালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ম্যানেজিং কমিটি/গভর্নিং বডির সভাপতি নির্বাচনের ক্ষেত্রে সৎ, যোগ্য ও বিদ্যেৎসাহী ব্যক্তিদের মনোনীত করতে কমিটি সুপারিশ করে।

সংসদীয় কমিটির সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা, শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, মহিবুল হাসান চৌধুরী, আব্দুল কুদ্দুস, এ কে এম শাহাজাহান কামাল, এম এ মতিন এবং গোলাম কিবরিয়া টিপু বৈঠকে অংশ নেন।

উল্লেখ্য, স্নাতক (পাস) ও অনার্স-মাস্টার্স কলেজের পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান হবার ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা ডিগ্রি পাস নির্ধারণ করা আছে। ২০১৫ খ্রিষ্টাব্দে এই শিক্ষাগত যোগ্যতা নির্ধারণ করা হয়। তবে বেসরকারি স্কুল, উচ্চ মাধ্যমিক কলেজ বা মাদরাসার ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি বা অন্য সদস্য হতে কোনো ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা নির্ধারিত নেই।

Share

Comments are closed.