,


সংবাদ শিরোনাম:
«» ধর্মপাশা চেয়ারম্যান কতৃক শিতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ উপস্থিত এম পি রতন «» গোলাপগঞ্জের পৌর এলাকায় পল্লী বিদ্যুতের উদ্যোগে উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত «» প্রথম পর্যায়ে ১০ হাজার ৭৮৯ রাজাকারের তালিকা প্রকাশ «» মধ্যনগর রামধানা ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট কতৃক মসজিদ নির্মাণ  «» সিলেট থিয়েটার মুরারিচাঁদ আয়োজিত ” পথ নাটক ও সাংস্কৃতিক উৎসব ” সম্পন্ন «» তাহিরপুরে লেপ-তোষকের দোকানে অগ্নিকান্ডে দুই লাখ টাকার ক্ষয় ক্ষতি «» তাহিরপুরে সবজি চাষ করে স্বাবলম্বী হচ্ছেন বেকাররা «» শাবি শিক্ষার্থীদের পাটকল শ্রমিকের ১১ দফা আদায়ে মৌনমিছিল ও মানববন্ধন «» শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশবিদ্যালয়:- প্রেস বিজ্ঞপ্তি «» মধ্যনগর বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে এম পি রতন এর বিনম্র শ্রদ্ধা’র’ মিছিল

গোলাপগঞ্জে উত্তেজনা, কমিটি ঘোষণা না করেই কেন্দ্রীয় নেতাদের সম্মেলনস্থল ত্যাগ

গোলাপগঞ্জে উত্তেজনা, কমিটি ঘোষণা না করেই কেন্দ্রীয় নেতাদের সম্মেলনস্থল ত্যাগ

মোঃ আব্দুল আজিজ(বাবর):
গোলাপগঞ্জে দীর্ঘ ১৪ বছর পর সম্মেলন অনুষ্ঠিত হলেও স্থানীয় আওয়ামী লীগের কর্মীদের উত্তেজনা ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হলে কমিটি ঘোষণা না করেই সম্মেলনস্থল ত্যাগ করেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা। পরবর্তীতে কেন্দ্রের সাথে আলোচনা করে গোলাপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটি ঘোষণা করা হবে বলে জানান কেন্দ্রীয় নেতারা।
আজ বুধবার গোলাপগঞ্জ আ.লীগের সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে এ ঘটনা ঘটে। জানা যায়- উপস্থিত কেন্দ্রীয় ও জেলা আওয়ামী লীগের নেতারা গোলাপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটি কেন্দ্রের সিদ্ধান্তে ঘোষণা করার মত প্রকাশ করেন। এসময় স্থানীয় কাউন্সিলররা তাদের ভোটাভুটির মাধ্যমের নেতা নির্বাচনের জন্য আহ্বান জানান। কাউন্সিলেল মাধ্যমে অযোগ্য নেতারা বেরিয়ে আসবে উল্লেখ করে কাউন্সিলকে সমর্থন না জানিয়ে কেন্দ্রের সিদ্ধান্তে কমিটি দেওয়ার ঘোষনা করেন। তখন সম্মেলনে উপস্থিত কাউন্সিররা উত্তেজনা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করেন।
এক পর্যায়ে কমিটি ঘোষণা না করেই পুলিশের হেফাজতে সম্মেলন ত্যাগ কেন্দ্রীয় নেতারা। সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এমপি, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আ’লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি লুৎফুর রহমান, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য ইনাম আহমদ চৌধুরী, আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড, মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, সিলেট মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্জ্ব শফিকুর রহমান চৌধুরী,সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ,সাবেক এমপি সৈয়দা জেবুন্নেছা, জেলা আ’লীগের যুগ্ম সম্পাদক অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিক, যুগ্ম সম্পাদক অ্যাড. নাছির উদ্দিন খান, সাংগঠনিক সম্পাদক হুমায়ুন ইসলাম কামাল, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক বিজিত চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক সাইফুল ইসলাম রুহেল, উপ-দপ্তর সম্পাদক জগলু চৌধুরী, জেলা আ’লীগের শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক কবির আহমদ, জেলা আ’লীগের সদস্য নুরুল আমিন ও সৈয়দ মিসবাহ উদ্দিন, জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী এমপি, বীর মুক্তিযোদ্ধা সেলিম উদ্দিন ফলিক, গোলাপগঞ্জ পৌর মেয়র আমিনুল ইসলাম রাবেল সহ স্থানীয় নেতারা। উপস্থিত নেতাকর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হলে পুলিশ ও জেলার নেতাদের সহায়তায় কেন্দ্রীয় নেতারা গোলাপগঞ্জ ত্যাগ করেন।
Share

Comments are closed.