,


সংবাদ শিরোনাম:

মৌলভীবাজারে কুশিয়ারা নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে এক লাখ টাকা জরিমানা আদায়

মৌলভীবাজারে কুশিয়ারা নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে এক লাখ টাকা জরিমানা আদায়

 

 

আব্দুস সামাদ আজাদ:মৌলভীবাজার:

কুশিয়ারা নদীর থেকে অবৈধভাবে পলিবালু উত্তোলনের দায়ে ভ্রাম্যমান আদালত বালু উত্তোলনকারীচক্রের কাছ থেকে এক লাখ টাকা জরিমানা আদায় করেছেন। ১২ ডিসেম্বর রোববার দুপুরে মৌলভীবাজার সদর উপজেলার কুশিয়ারা নদীর তীরবর্তী বাহাদুরপুর এলাকায় এই ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন সহকারী কমিশনার (ভূমি)।

স্থানীয় ও ভ্রাম্যমান আদালত সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘ দিন ধরে কুশিয়ারা নদীর মৌলভীবাজার অংশের সদর উপজেলার বাহাদুরপুর এলাকা থেকে রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে একাধিক ড্রেজার দিয়ে পলিবালু উত্তোলন করে বিক্রি করছিল স্থানীয় প্রভাবশালীমহল।

নদী তীরবর্তী লোকালয়ের লোকজন ভাঙন রোধে জেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দেওয়ার পরি আজ রোববার সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) বাহাদুরপুর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনে ব্যবহৃত দু’টি নৌকা ও ৬ জন শ্রমিককে আটক করেন। তখন অভিযানিক টিমকে দেখে ড্রেজার নিয়ে পালিয়ে যায় ড্রেজার শ্রমিকরা। সহকারী ভূমি কমিশনার তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের সত্যতা পান। এরপর তিনি আটক ৬ শ্রমিককে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে এক লাখ টাকা জরিমানার রায় দেন। আটক শ্রমিকরা জরিমানার টাকা পরিশোধ করে অবৈধভাবে আর বালু উত্তোলন করবে না বলে মুচলেকা প্রদান করলে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সঞ্জিত কুমার চন্দ মোবাইল ফোনে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা ও এক লাখ টাকা জরিমানা আদায়ের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি আরও জানান ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনায় সহযোগিতা করে মডেল থানা নিয়ন্ত্রিত শেরপুর ফাঁড়ির পুলিশ।

Share

Comments are closed.